ঢাকা রবিবার, ২৩শে জুন ২০২৪, ১০ই আষাঢ় ১৪৩১

সুন্দরবনের বাঘদের জন্য তৈরি হচ্ছে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল


প্রকাশিত:
১৬ আগস্ট ২০২৩ ২২:৩১

আপডেট:
২৩ জুন ২০২৪ ০৬:২৫


ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সুন্দরবনের বাঘদের জন্য নির্মাণ করা হচ্ছে সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা জেলার সুন্দরবনের বাসন্তী ব্লকের ঝড়খালি এলাকার বাঘ পুনর্বাসন কেন্দ্রে এ হাসপাতালটি তৈরি হচ্ছে।  ’ওয়েস্ট বেঙ্গল জু অথরিট‘র তত্ত্বাবধানে হাসপাতালটি তৈরির কাজ হচ্ছে বলে ভারতের বন দপ্তর সূত্রে জানা গেছে। বাঘ পুনর্বাসন কেন্দ্রে হাসপাতালটি তৈরি করা হলেও এখানে যাতে সব রকমের পশুকে চিকিৎসা দেওয়া যায়, সেই ব্যবস্থাই করা হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

হাসপাতালের মূল ভবন তৈরি করা হলেও এখনো সেখানে বহু প্রযুক্তির সংযোজন বাকি রয়েছে বলে জানা গেছে। বাঘ সহ বিভিন্ন পশুপাখির চিকিৎসার জন্য অত্যাধুনিক সরঞ্জাম রাখা হবে এই সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। পশুপাখিদের অস্ত্রোপচারের জন্য তৈরি হবে পৃথক অপারেশন থিয়েটার। ‘টাইগার রেফারেল সুপার স্পেশালিটি হসপিটাল’ নাম দেওয়া হয়েছে এই অত্যাধুনিক চিকিৎসাকেন্দ্রের।

ভারতের বন দপ্তর সূত্রে খবর, হাসপাতাল চালু করার জন্য চিকিৎসার যেসব সরঞ্জাম প্রয়োজন হবে, তার তালিকা সরকারের কাছে আগেই পাঠানো হয়েছে। সেই তালিকায় রয়েছে এক্সরে, ইসিজি, ইউএসজির মেশিন, অপারেশন থিয়েটারের প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতিসহ আরও অত্যাধুনিক চিকিৎসায় ব্যবহারযোগ্য প্রযুক্তির জিনিস। চলতি বছরের শেষের দিকে হাসপাতালটি উদ্বোধন করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে কর্তৃপক্ষ।

সুন্দরবনের বাঘ, কুমির ছাড়াও যাতে অন্য বন্য প্রাণীদের চিকিৎসা করা যায়, সেই ভাবনা মাথায় রেখেই এই সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালটি তৈরির পরিকল্পনা নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার। ভারতের যেকোনো প্রান্ত থেকে আগত জীবজন্তুকে এখানে চিকিৎসা দেওয়ার জন্য যাতে ভর্তি করানো যায়, সেই ব্যবস্থাও রাখা হবে বলে জানানো হয়েছে।

বর্তমানে সুন্দরবনের এই পুনর্বাসন কেন্দ্রে তিনটি বাঘ ও ১১টি কুমির রয়েছে। সেগুলোর চিকিৎসার ব্যবস্থা এখানেই রয়েছে। অত্যাধুনিক চিকিৎসার জন্য এই হাসপাতালে একটি বিশেষ ধরনের ‘হাইড্রোলিক টেবিল’ আনার পরিকল্পনা রয়েছে। টেবিলটি সহজে ওঠানামা করবে। যাতে যেকোনো আয়তনের প্রাণী।

সেখানে শুইয়ে রেখে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া যায়। বাইরে থেকে চিকিৎসার জন্য প্রাণীদের এই হাসপাতালে আনতে একটি বিশেষ ধরনের অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা রাখা হচ্ছে।

প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে, হাসপাতালের জন্য চারজন চিকিৎসক এবং একজন অস্ত্রোপচারের চিকিৎসক থাকবেন। প্যাথোলজিস্ট, ফার্মাসিস্টসহ অন্য জরুরি পদেও নিয়োগ দেওয়া হবে।

 


বিষয়:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top