ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮শে জুন ২০২২, ১৫ই আষাঢ় ১৪২৯


পানি নামতে শুরু করেছে সিলেটে


প্রকাশিত:
২১ মে ২০২২ ১৬:৪৯

আপডেট:
২৮ জুন ২০২২ ০৬:৩৮

বন্যার পানিতে তলিয়ে যায় সিলেট মহানগরীর অনেক এলাক

প্রায় এক সপ্তাহ ধরে চলা ভারী বর্ষণ এবং উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ী ঢলে স্মরণকালের আকষ্মিক বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে শুরু করেছে সিলেটে। আগের তুলনা অনেকটা কমেছে সুরমা, কুশিয়ারা, ধোলাই, পিয়াইন নদ-নদীর পানি।

২১ মে শনিবার বন্যার পানিতে তলিয়ে যাওয়া লালাদিঘিরপাড়, উপশহর-সহ সিলেটের বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায়, বাসাবাড়ি-দোকানপাট ধোয়ামোছা করছেন ভুক্তভোগীরা। এসব এলাকায় পানি কমলেও সাধারণের দুর্ভোগ বেড়ে অনেক। বন্যার আাগের স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরিয়ে নিতে বেগ পেতে হচ্ছে সবাইকে।

স্থানীয় গণমাধ্যম এবং সাংবাদিকরা জানিয়েছেন, এক সপ্তাাহের ভয়াবহ বন্যায় পানিবন্দি হয়ে পড়েছে সিলেট নগরীর কয়েক লাখ বাসিন্দা। বন্যা কবলিত অনেক এলাকা রয়েছে বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন। বন্যার পানি নামতে শুরু করলেও পানিবাহিত নানা অসুখে আক্রান্ত পড়েছেন বন্যা কবলিতরা। সিলেটের ১২টি ওয়ার্ড পানিতে তলিয়ে যাওয়ায়, ডায়রিয়া, চর্মরোগ, জ্বর ও সর্দি-কাশি এবং পানি বাহিত রোগের ঝুঁকিতে পড়েছেন নগরের বাসিন্দারা। এদিকে জেলা প্রশাসন জানায়, সিলেটের ১৩টি উপজেলার ৮৫টি ইউনিয়ন হয়েছে বন্যা কবলিত। দুর্যোগ কবলিত বাসিন্দাদের জন্য খোলা হয়েছে ৩২৬টি আশ্রয় কেন্দ্র।

উল্লেখ্য গেল ১০ মে থেকে সিলেটে ভারী বর্ষণ শুরু হয়। এর পাশাপাশি উজান থেকে নেমে আসে পাহাড়ী ঢলে ১১ মে থেকে প্লাবিত হতে থাকে সিলেটের নিম্নাঞ্চল। আর বন্যার পানিতে সিলেট মহানগরী ডুবতে শুরু করে ১৩ মে থেকে। এক সপ্তাহ’র বেশি পানি থাকায় ভয়াবহ রূপ নেয় সিলেটের বন্যা পরিস্থিতি।

পিটিভি/জুআসা/২০২২




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top