ঢাকা মঙ্গলবার, ২৮শে জুন ২০২২, ১৪ই আষাঢ় ১৪২৯


উত্তরে বৃষ্টি; বাড়ছে নদ-নদীর পানি


প্রকাশিত:
১৫ মে ২০২২ ১০:৫৪

আপডেট:
২৮ জুন ২০২২ ০৫:২২

মানচিত্রে বাংলাদেশ ও ভারতের বৃষ্টিপাত এলাকা

ঘূর্ণিঝড় আসানি ভারতের অন্ধ্র উপকূল অতিক্রম করে গুরুত্বহীন হলেও, তার প্রভাবিত মেঘ বিরাজ করছে দেশের আকাশে। গেল কয়েকদিন ধরে দমকা বাতাসের সাথে বৃষ্টি হচ্ছে প্রায় সব বিভাগে। বিশেষ করে রংপুর, ময়মনসিহ ও সিলেট বিভাগে বৃষ্টি হচ্ছে বর্ষাকালের মতই। এ কারণে তাপ প্রবাহের মত অবস্থা সৃষ্টি হচ্ছে না। গেল ২৪ ঘন্টায় সবচেয়ে বেশি ১১৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে সিলেটে। এছাড়া উল্লেখ করার মত বৃষ্টি হয়েছে শ্রীমঙ্গলে ৮৪, কুড়িগ্রামে ২৪, রংপুরে ১৯, সৈয়দপুরে ১৫ এবং ময়মনসিংহে ১২ মিলিমিটার।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, উত্তরের রংপুর, মধ্যাঞ্চলের ময়মনসিংহ, উত্তর-পূর্বের সিলেট বিভাগে আরও কয়েকদিন মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে।

এদিকে ভারতের আসাম, মনিপুর রাজ্য এবং মেঘালয় পাহাড়ের পাদদেশিয় এলাকা সিলেট বিভাগে ভারী বর্ষণের কারণে নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে। ইতোমধ্যে সিলেটের কানাইঘাট পয়েন্টে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের পূর্বাভাস অনুযায়ি আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘন্টায় উজানের নদীগুলোর পানি বাড়তে পারে। বিশেষ করে, উত্তর-পূর্বে সিলেট বিভাগে সুরমা, কুশিয়ারা, মনু, খোয়াই ও ধনু নদীর পানি বাড়তে পারে। উজানে ভারতের আসাম, মনিপুর ও পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে মাঝারি থেকে ভারী বর্ষণ হচ্ছে কয়েকদিন ধরে, যা আরও দুই-তিন দিন চলতে পারে। এমন অবস্থায় তিস্তা, ধরলা, দুধ কুমার, ব্রহ্মপুত্র ও যমুনা নদীর পানি বেশ বাড়তে পারে।

পিটিভি/জুআসা/২০২২




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top