ঢাকা সোমবার, ২৭শে সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ই আশ্বিন ১৪২৮


বন্যায় জামালপুরে প্রায় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী


প্রকাশিত:
৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০০:০২

আপডেট:
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৫:২৩


জামালপুরের বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। জেলার বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি ৪ সেন্টিমিটার বেড়ে বিপৎসীমার ৬৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। উজান থেকে নেমে আসা ঢলে বিভিন্ন উপজেলার প্রায় লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী রয়েছে।

জেলার ৩৬টিইউনিয়ন এবং ৬টি পৌরসভার বিভিন্ন অংশ বর্তমানে পানিবন্দী অবস্থায় রয়েছেন। দেখা দিয়েছে খাদ্য, শিশু খাদ্য ও বিশুদ্ধ পানির সংকট। সব কিছু মিলিয়ে বন্যা দুর্গত এলাকায় মানুষ মানবেতর জীবন যাপন করছে।

জেলার ত্রাণ ও পূনর্বাসন কর্মকর্তা মো.নায়েব আলী জানান, জেলার ৭টি উপজেলা বন্যা কবলিত হয়ে পড়েছে। এ পর্যন্ত ৬৫ টি পরিবার নদী ভাঙনের শিকার হয়েছেন।

বন্যা মোকাবিলায় সব ধরনের প্রস্তুতি প্রশাসনের পক্ষ থেকে রাখা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

বন্যা দুর্গতদের জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিটি উপজেলায় আগেই ৩৫ মেট্রিকটন চাল ও নগদ ২৭ লাখ টাকা মজুদ রাখা হয়েছে। এছাড়াও জেলায় প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৪ শত মেট্রিকটন চাল ও নগদ ৮২ লাখ টাকা। দুর্যোগ মোকাবিলা ১৫৫ টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

প্রশাসনের পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তা পর্যাপ্ত থাকলেও চোখে পরার মত কার্যক্রম এখনও দেখা যায়নি।

যমুনা ও ব্রহ্মপুত্র নদের পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন সংযোগ সড়ক ভেঙ্গে বিলীন হয়ে পড়েছে।

বন্যার কারণে সাধুরপাড়া ইউনিয়নের চর কামালের বার্তী ১১৫ ফুট দৈর্ঘ্যের কাঠের একটি সাঁকো ভেঙে গিয়ে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।

এছাড়াও বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে ২ হাজার হেক্টর ফসলের মাঠ ও গো-চারণভূমি, কাঁচা পাকা সড়ক ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।


বিষয়:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top