ঢাকা শুক্রবার, ১২ই জুলাই ২০২৪, ২৯শে আষাঢ় ১৪৩১


রাসেলস ভাইপার: অ্যান্টিভেনমের অভাব নেই, আতঙ্কিত না হওয়ার আহ্বান সিভিল সার্জনের


প্রকাশিত:
২২ জুন ২০২৪ ২১:৩৯

আপডেট:
১২ জুলাই ২০২৪ ১৯:১৯

বাংলাদেশের বেশ কিছু জেলায় রাসেলস ভাইপার সাপ নিয়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে অনেকেই এই সাপের ছবি, ভিডিওসহ সাপটি সম্পর্কে নানা ভয়ঙ্কর তথ্য দিচ্ছেন। অনেকে প্রচার করছেন সাপটি কামড় দিলে মানুষের দ্রুত মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিয়ে অনেকে নানাভাবে উদ্বেগ প্রকাশ করছেন। এ ধরনের নেতিবাচক প্রচারের কারণে সারা দেশের ন্যায় খুলনার শহর থেকে শুরু করে গ্রামাঞ্চলে ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

তবে খুলনার হাসপাতালগুলোতে অ্যান্টিভেনমের অভাব নেই জানিয়ে এই সাপ নিয়ে আতঙ্কিত না হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন জেলার সিভিল সার্জন ডা. শেখ সফিকুল ইসলাম। ২২ জুন শনিবারএসব কথা বলেন তিনি।

শেখ সফিকুল ইসলাম বলেন, সাপে কামড়ানো রোগীর জন্য খুলনার ৯টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যেতে হবে। দ্রুত সময়ের মধ্যে যদি জেনারেল হাসপাতাল বা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া সম্ভব হয় তাহলে সেখানে নিয়ে যেতে হবে। খুলনার বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, জেনারেল ও মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অ্যান্টিভেনমের কোনো অভাব নেই।

তিনি বলেন, দেশে অনেক ধরনের বিষধর সাপ রয়েছে যা মানুষকে বা অন্য কোনো প্রাণীকে কামড় দিলে মৃত্যু হতে পারে। সাপের কামড়ে বছরে অনেক মানুষের প্রাণহাণিও ঘটছে। তবে সময়মত চিকিৎসা নিতে পারলে সাপের কামড়ে কেউ মারা যাবে না।

সিভিল সার্জন বলেন, বর্তমানে রাসেলস ভাইপার নিয়ে এতো বেশি আতঙ্ক ছড়ানো হচ্ছে যে, তা মানুষকে চরমভাবে আতঙ্কিত করছে। বর্ষা মৌসুমে সাপের উপদ্রব একটু বেশি হয়। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের কারণে দিনের বেলাতেও অনেকে বাড়ির আশপাশে বা বাগানে যেতে সাহস পাচ্ছেন না। আবার অনেক জায়গায় নির্বিষ ঢোড়া সাপে কামড় দিলেও বলা হচ্ছে রাসেলস ভাইপারে কামড় দিয়েছে। সাপ দেখলেই মেরে ফেলা হচ্ছে। এতে প্রকৃতির ভারসাম্য নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, রাসেলস ভাইপার নিয়ে আতঙ্কের কিছু নেই। এই সাপে যদি কাউকে কামড়ায়, তাহলে সময়মত যদি চিকিৎসা দেওয়া যায় তাহলে কোনো ক্ষতি হবে না। শুধু রাসেলস ভাইপার নয়, যে কোনো সাপে কামড় দিলে দ্রুত চিকিৎসা নিতে হবে। একই সঙ্গে রাতে ঘর থেকে বের হলে হাতে আলো এবং ছোটখাটো লাঠি রাখার কথাও বলেন তিনি।


বিষয়:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top