ঢাকা শুক্রবার, ১২ই জুলাই ২০২৪, ২৯শে আষাঢ় ১৪৩১

ভারতের শীতলতম শহর দ্রাস


প্রকাশিত:
৪ ডিসেম্বর ২০১৯ ০১:০৩

আপডেট:
১২ জুলাই ২০২৪ ২১:৫১

দ্রাসের প্রাকৃতিক দৃশ্য

পরিবেশ টিভি: আমাদের দেশের মতো গ্রীষ্মপ্রধান দেশগুলোতে একটু শীত পড়লেই সবাই কাবু হয়ে পড়েন। তবে শীতের আসল অর্থ বুঝতে হলে প্রতিবেশী দেশ ভারতের একটি শহরে যেতে পারেন।

জম্মু ও কাশ্মীর প্রদেশের কারগিল জেলার ছোট্ট এক শহর দ্রাস। রাশিয়ার ওয়াইমিয়াকোনের পর এটি বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল শীতলতল স্থান। বর্তমানে এখানে প্রায় ১ হাজার ২০০ অধিবাসী রয়েছে।

কারগিল শহর থেকে দ্রাসের দুরত্ব ৫৫ কিলোমিটার। বিশ্বের দ্বিতীয় শীতলতম শহর হলেও এখানকার প্রাকৃতিক দৃশ্য অত্যন্ত আকর্ষণীয়।

লাদাকের প্রবেশ দ্বার হিসেবে দ্রাস বেশি পরিচিত হলেও এখানকার আবহাওয়া পর্যটকদের অন্যরকম শীতল অনুভূতি দেবে। কারণ স্বাভাবিক অবস্থাতেই এখানকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শীতলতম শহর হলেও দ্রাসে ভালো মানের থাকার আবাসনের ব্যবস্থা রয়েছে। এর বেশিরভাগই মূলত গেস্ট হাউস। কারণ অনেকেই প্রচণ্ড ঠাণ্ডার কারণে এখানে রাত কাটাতে চান না। বেশিরভাগ পর্যটক কারগিল যাওয়া-আসার পথে দ্রাসে থামেন।

এ কারণে গেস্ট হাউসগুলোতে সেভাবেই পর্যটকদের থাকা-খাওয়ার আয়োজন করা হয়। কম দামে এখানে ভালো মানের সুস্বাদু খাবার পাওয়া যায়।

শীতের সময় দ্রাস নদী জমে বরফ হয়ে যায়। এখানকার প্রকৃতি, সূর্যোদয় কিংবা সূর্যাস্তের দৃশ্য আপনাকে অন্য এক পৃথিবীর সন্ধান দেবে। এছাড়া এখানে বেড়াতে গেলে কারগিল যুদ্ধে নিহত সৈন্যদের স্মরণে নির্মিত একটি স্মৃতিস্তম্ভও দেখতে পাবেন।

 


বিষয়:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top