ঢাকা রবিবার, ২৩শে জুন ২০২৪, ১০ই আষাঢ় ১৪৩১

ঢাকায় ৭ মাত্রার ভূমিকম্প হলে দেড় লাখ মানুষ মারা যাবে : দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী


প্রকাশিত:
২৩ আগস্ট ২০২৩ ২২:৪২

আপডেট:
২৩ আগস্ট ২০২৩ ২২:৪২

ঢাকায় ৭ মাত্রার ভূমিকম্প হলে দেড় লাখ মানুষ মানুষ মারা যাবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন দুর্যোগ ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান। তিনি বলেন, এরকম ঘটনায় ৫ লাখ মানুষ জখম হতে পারে। এ জন্য ঢাকার সব ঝুঁকিপূর্ণ ভবন পর্যায়ক্রমে ভেঙে ফেলা হবে। ২৩ আগস্ট,বুধবার সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে সুপার-সমকাল আর্থকোয়েক অ্যান্ড ফায়ার প্রিপেয়ার্ডনেস অ্যাওয়ার্ড-২০২৩ অনুষ্ঠানে তিনি এ শঙ্কা প্রকাশ করেন।

বর্তমান সময়ে ঢাকায় ৭ মাত্রার ভূমিকম্প হলে দেড় লাখ মানুষের মৃত্যু হবে জানিয়ে এনামুর রহমান বলেন, শুধু তাই না, এতে আহত হবে ৫ লাখ মানুষ। আর ১ লাখ ৭২ হাজার বাড়িঘর ধ্বংস হবে। তাই ঢাকার ঝুঁকিপূর্ণ ভবনগুলো পর্যায়ক্রমে ভেঙে ফেলা হবে।

প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেন, সরকার ঢাকায় ভূমিকম্প সক্ষমতা তৈরি করার প্রকল্প হাতে নিয়েছে। প্রকল্পটি আটটি জোনে ভাগ করা হয়েছে। এ জন্য ৪২০ কোটি টাকার সরঞ্জাম কেনা হয়েছে। জাইকার সহযোগিতায় ভূমিকম্প সহনীয় ভবনের ওপর সার্ভে করা হয়েছে। জাপান সর্বাত্মক সহযোগিতা করছে। ভবিষ্যতে বিল্ডিং কোড ছাড়া আর কাউকে ভবন নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ঝুঁকি হ্রাসে পুরোনো ভবন ভাঙা হবে। এর জায়গায় জাপানের সহযোগিতা ও জাইকার কারিগরি সহযোগিতায় নতুন ভবন নির্মাণ করা হবে। এজন্য বেসরকারিভাবে প্রকৌশলী নিয়োগ দেয়া হবে। শুধু ভবন নয়, নতুন সব ব্রিজ নির্মাণ করা হবে ভূমিকম্প সহনীয় সক্ষমতায়।’

তিনি বলেন, ভূমিকম্প মোকাবিলায় এখনো পর্যাপ্ত সক্ষমতা অর্জন করতে পারেনি বাংলাদেশ। তবে ভূমিকম্প হলে যেন দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া যায় সেজন্য ৪৪ হাজার স্বেচ্ছাসেবক তৈরি আছে।


বিষয়:



আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top