ঢাকা শনিবার, ২১শে মে ২০২২, ৮ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

ধর্মপাশায় ৩০০ মিটার রাস্তা ধসে নদে বিলীন, লক্ষাধিক মানুষের দুর্ভোগ চরমে


প্রকাশিত:
২৮ জানুয়ারী ২০২২ ২০:৫৮

আপডেট:
২৮ জানুয়ারী ২০২২ ২০:৫৮

সুনামগঞ্জ জেলার ধর্মপাশা উপজেলার লামামেউহারী থেকে ঘুলুয়া কদমতলা বাজার পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার সড়কের মধ্যে প্রায় ৯৫০ ফুটের এক পাশের রাস্তা ধ্বসে পার্শ্ববর্তী কংস নদের মধ্যে বিলীন হয়ে গেছে। যার ফলে অত্র অঞ্চলের তিনটি ইউনিয়নসহ পার্শ্ববর্তী এলাকার লক্ষাধিক মানুষ প্রতিনিয়ত দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন।

২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বিআইডব্লিউটিএ - বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ ধর্মপাশা উপজেলার কংস নদে খনন কার্য শুরু করে। তখনথেকেই সড়কটিতে ভাঙন শুরু হয়।

২০১৭ সালের জুন মাসে এডিপির অর্থায়নে লামামেউহারী একটি অস্থায়ী মাটির রাস্তা নির্মাণ করা হয়। কিন্তু ওই রাস্তার প্রায় ৯৫০ ফুটের এক পাশ ধসে কংস নদে বিলীন হয়ে যাওয়ায় বর্ষা মৌসুমে রাস্তার ওপর দিয়ে যানবাহন চলাচল সম্ভব হয় না। এই সড়কের ওপর দিয়ে ধর্মপাশা সদর ইউনিয়ন, সুখাইড় রাজাপুর উত্তর ইউনিয়ন, সুখাইড় রাজাপুর দক্ষিণ ইউনিয়নসহ ওই অঞ্চলের লক্ষাধিক মানুষ চলাচল করে। এ উপজেলার নাগরিকদের জেলা সদরে যাওয়া-আসার প্রধান রাস্তা এখন এটি। রাস্তার ওপর দিয়ে ইজিবাইক, রিকশা, ঠেলাগাড়ি, মোটরসাইকেল সহ দৈনিক তিন শতাধিক যানবাহন চলাচল করে। অতিরিক্ত চাপের কারণে সড়কটি ভাঙতে ভাঙতে এখন সরু হয়ে যাচ্ছে। জনদুর্ভোগও বাড়ছে।

উপজেলার সুখাইড় রাজাপুর উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান ফরহাদ আহমেদ বলেন, এই রাস্তাটি ব্যবহার করে প্রায় লক্ষাধিক মানুষ প্রতিদিন যাতায়াত করে করে। রাস্তা সংস্কারে অতি দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন। উপজেলা প্রকৌশলী আরিফ উল্লাহ খান জানিয়েছেন, এলজিইডির হাওরে অঞ্চলের বন্যা ব্যবস্থাপনা ও জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পনাধীন কার্যক্রমের আওতায় এই সড়ক পাকাকরণ, প্রতিরক্ষাদেয়াল নির্মাণ ও মাটি ভরাট কাজের প্রাক্কলন তৈরি করে তা প্রজেক্ট ডিরেক্টর বা প্রকল্প পরিচালকের কাছে পাঠানো হয়েছে। এই বিষয়টি এখন প্রক্রিয়াধীন অবস্থায় আছে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top