ঢাকা শুক্রবার, ৭ই অক্টোবর ২০২২, ২৩শে আশ্বিন ১৪২৯


টেকসই উন্নয়নে পানি ও স্যানিটেশন খাতে অর্থায়ন বাড়ানোর পরামর্শ


প্রকাশিত:
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৬:২২

আপডেট:
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ০৭:৫৬

মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ ব্যাংকের টেকসই অর্থনীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক খন্দকার মোর্শেদ মিল্লাত

বর্তমানে বাংলাদেশে উম্মুক্ত বা খোলা টয়লেট ব্যবহার এক শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। তবুও স্বাস্থ্য সম্মত টয়লেট ব্যবহারের স্যানিটেশন র‌্যাংকিং-এ বাংলাদেশকে মোকাবিলা করতে হচ্ছে অনেক চ্যালেঞ্জ। রাজধানীর কাওরান বাজারে একটি স্বনাম ধন্য পত্রিকার মিলনায়তনে ফাইন্যান্সিয়াল ইনক্লুশান ইমপ্রুভ স্যানিটেশন এন্ড হেলথ বা ‘ফিনিশ মনডিয়াল’ আয়েজিত গোলটেবিল আলোচনায় এসব কথা বলেন বক্তারা।

‘বাংলাদেশে পানি ও স্যানিটেশন (ওয়াশ) খাতে অর্থায়ন এবং বেসরকারী খাতে চ্যালেঞ্জ ও সুযোগ’ নিয়ে আয়োজিত গোল টেবিল আলোচনায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, ফিনিশ মনডিয়ালের পরামর্শক ওয়াহিদা আনজুম, গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেডের ইমপ্যাক্ট বিজনেস প্রধান শুভাসিস বড়ুয়া এবং কর্ড এইডের আবুল কালাম আজাদ। ফিনিশ মনডিয়ালের সুপারভাইজারি বোর্ড এবং পিকেএসএফ-এর সহকারী ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. মোঃ ফজলুল কাদেরের সভাপতিত্বে আলোচনায় বিশেষজ্ঞরা বলেন, অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থায়নে অনেকগুলো লক্ষ্য অর্জন করা যেতে পারে। এভাবে সম্পদের সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা এবং নতুন নতুন প্রযুক্তি উদ্ভাবনের মাধ্যমে ওয়াশ খাতে উন্নয়ন সম্ভব। তারা বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা বা এসডিজি-৬ অর্জনে দরকার স্যানিটেশন খাতে অর্থায়নের উপায় খুঁজে বের করা। এভাবে ওয়াশ খাতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা বা এসএমই হতে পারে টেকসই উন্নয়নের অন্যতম চাবিকাঠি।

প্রবন্ধ উপস্থাপন শেষে মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন, বাংলাদেশে নিযুক্ত নেদারল্যান্ড দূতাবাসের ফার্স্ট সেক্রেটারী ফোলকের্ট ডি জাগের, বাংলাদেশ ব্যাংকের টেকসই অর্থনীতি বিভাগের মহাব্যবস্থাপক খন্দকার মোর্শেদ মিল্লাত, ফিনিশ মনডিয়ালের কান্ট্রি সমন্বয়ক মাহবুল ইসলাম-সহ বর্জ্য ব্যবস্থপনা ও স্যানিটেশন সংশ্লিষ্ট বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেন, দেশ জুড়ে বিস্তৃত ওয়াশ সেবা পারে বাংলাদেশকে পরিচ্ছন্ন, নিরপাদ ও সমৃদ্ধ করতে। তাই এ সংশ্লিষ্ট ব্যবসায় অবশ্যই বিশেষ সুযোগ থাকা উচিৎ, যাতে প্রয়োজন অনুসারে সাশ্রয়ী মূল্যে সেবা দেয়া যায়। এভাবে, ট্রাডিশনাল বা আগের পদ্ধতির বিকল্প হিসেবে পানি ও স্যানিটেশন, অর্থাৎ ওয়াশ খাতে অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থায়নে কাংখিত গন্তব্যে পৌঁছানো সম্ভব হবে বলে আশা করেন তারা।

পিটিভি/২০২২




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top