ঢাকা শনিবার, ২১শে মে ২০২২, ৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

উদ্ধার হলো লাউতলা খালের ৩০০ মিটার


প্রকাশিত:
২৭ জানুয়ারী ২০২২ ১৬:৪৬

আপডেট:
২৭ জানুয়ারী ২০২২ ১৬:৪৬

লাউতলা খাল উদ্ধার অভিযান

চতুর্থ দিনের মতো অভিযান পরিচালনা করে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বছিলার লাউতলা খালের ৩০০ মিটার উদ্ধার করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। গতকাল ২৬ জানুয়ারী বুধবারের খাল উদ্ধার অভিযানে তিনতলা একটি ভবনের কিছুঅংশ, ৩০টির মতো দোকান ও শতাধিক টিনশেড বস্তিঘর উচ্ছেদ করা হয়। এর পাশাপাশি লাউতলা খালটির খননকাজও চলছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, খাল খননের জন্য তিনটি ভারী খননযন্ত্র ব্যবহার করা হচ্ছে। ডিএনসিস ‘র অভিযানের ফলে, সম্পূর্ণ নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়া লাউতলা খাল এখন ধীরে ধীরে দৃশ্যমান হতে শুরু করেছে। খালে পানির প্রবাহ সচল করতে পাশের রামচন্দ্রপুর খালের আবর্জনা পরিষ্কার ও লাউতলা খালের সঙ্গে যুক্ত স্থানে খননের কাজ করেন করপোরেশনের কর্মীরা।

বছিলা ৪০ ফুট রাস্তার মূলসড়কের পূর্বপাশে, স্বপ্নধারা হাউজিং নামে একটি আবাসন কোম্পানী খালের জায়গা দখল করে অবৈধ দোকান ও ঘরবাড়ি বানায় বেশি কিছুদিন ধরেই। মূলত ওই স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয় ‍দুপুরের দিকে। একটি তিনতলা আবাসিক ভবন, অর্ধশতাধিক দোকান ও ডেইরি ফার্ম এর একাংশ ভেঙে ফেলা হয়।

মমতাজ শপিং কমপ্লেক্সের উত্তর-পূর্ব অংশে সম্পূর্ণ দখলকৃত পাঁচশ মিটার খালের উপর গড়ে ওঠা টিনশেড বস্তিঘর, অটোরিকশা গ্যারেজ, গাড়ি মেরামতের ওয়ার্কশপ ও দোকান ভেঙে ফেলা হয়। চাঁদ উদ্যান আবাসিক এলাকার ৭ নম্বর সড়ক পর্যন্ত গিয়ে উচ্ছেদ অভিযান শেষ হয়। শেই দুটি দশ তলার আবাসিক ভবন রয়েছে এ অংশেই। এই দুটি ভবনই খালের আংশিক জায়গা দখল করে বানানো হয়েছে। ভবনদুটির একটির ৭ ফুট, অন্যটির ৩০ ফুট ভাঙা হবে বলে জানান ডিএনসিসি কর্মকর্তারা।

একতা সমবায় সমিতি নামের একটি অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান খালের জায়গা দখল করে ওই অংশে শতাধিক বস্তিঘর বানিয়েছিল। সমিতির নেতারা সেখানে দুই ধরনের ঘর ভাড়া দিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করতেন। বারান্দা সহ টিনের ছাউনিওয়ালা ঘরের ভাড়া ছিলো ৪ হাজার ৪০০ টাকা, এক রুমের ভাড়া নেয়া হতো সাড়ে ৩ হাজার টাকা।

লাউতলা খালের জায়গা ভরাট করে অটোরিকশার গ্যারেজ করা হয়। শেখ নামের একজন গ্যারেজটি পরিচালনা করতেন। প্রায় ৭০টি অটোরিকশা ওই গ্যারেজে রাখা হতো। প্রত্যেক অটোরিকশার কাছ থেকে নেয়া হতো ৭০০ টাকা। মাসে ভাড়া আসতো প্রায় অর্ধলক্ষ টাকা।

ডিএনসিসি ৫ নম্বর অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাহী অফিসার মোতাকাব্বির আহমেদ জানান, দখল হওয়া প্রায় ৩০০ মিটার খাল উদ্ধার করা সম্ভব হয়েঠে। খননকাজ করতে হবে। ওই ১০ তলা  ভবনদুটির সীমানা চিহ্নিত করার পর ভাঙার কাজ শুরু হবে শিগগিরই। তিনি আরো বলেন, ঢাকা সিটি করপোরেশন ও জেলা প্রশাসন যৌথভাবে খালের সীমানা চিহ্নিতকরণের কাজ করছে।




আপনার মূল্যবান মতামত দিন:

Top